Home / মিডিয়া নিউজ / হিন্দিতে দশে দশ পাওয়ার জন্য মায়ের কাছ থেকে বিশেষ পুরষ্কার পেয়েছিলেন শাহরুখ

হিন্দিতে দশে দশ পাওয়ার জন্য মায়ের কাছ থেকে বিশেষ পুরষ্কার পেয়েছিলেন শাহরুখ

বিশ্বের ধনী অভিনেতাদের মধ্যে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। গত ২

নভেম্বর এই জনপ্রিয় অভিনেতা জীবনের ৫৫ বছর অতিক্রম করে ৫৬ বছরে যাত্রা শুরু করেছেন।

এই দিন নানা উৎসব মুখর অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে উদযাপিত হয়েছে। এবং বিশ্ব জুড়ে অসংখ্য

ভক্ত-অনুটাগীদের ভাআলবাসায় সিক্ত হয়েছেন তিনি। সম্প্রতি তার বিষয়ে অজানা বেশ কিছু কথা উঠে এসেছে প্রকাশ্যে।

বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের জন্মদিন আজ (২ নভেম্বর)। এদিন ৫৬ বছরে পা দিয়েছেন তিনি। তবে এবারের বিশেষ দিনটি এই সুপারস্টারের কাছে একটু অন্যরকমই বটে। মাকদসহ বড় ছেলে আরিয়ান খানের আ/ট/ক-গ্রে/ফ/তা/র মিলিয়ে গত কিছুদিন ধরে খুব খারাপ সময় পার করেছেন কিং খান। অবশেষে জামিনে মুক্ত হয়ে বাসায় ফিরেছেন আরিয়ান খান। ফলে জন্মদিনে বড় ছেলের ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে না শাহরুখকে। শাহরুখ খানের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে রয়েছে নানান অজানা ঘটনা। জন্মদিন উপলক্ষে শাহরুল ভক্তদের জন্য সেই ঘটনাগুলোর কিছু তুলে ধরা হলো।

১. ১৯৬৫ সালের ২ নভেম্বর তাজ মুহম্মদ খান আর লতিফ ফাতিমার পরিবারে জন্মগ্রনণ করেন শাহরুখ খান। পাঁচ বছর বয়স পর্যন্ত তিনি নানীর সঙ্গে প্রথমে ম্যাঙ্গালোর আর তারপরে ব্যাঙ্গালোরে থাকতেন। নানী তার দেখাশোনা করতেন। শাহরুখের নানা ম্যাঙ্গালোর বন্দরের মুখ্য প্রকৌশলী ছিলেন।

২. শাহরুখের বাবা পাকিস্তানের পেশোয়ারের মানুষ, মা ভারতের হায়দ্রাবাদের আর দাদি কাশ্মীরের। বাড়িতে শাহরুখের বাবা ‘হিন্দকো’ ভাষায় কথা বলতেন। এই ভাষা পাকিস্তানে ব্যবহৃত পাঞ্জাবী কথ্য ভাষা।

৩. পাকিস্তানের পেশোয়ারের সঙ্গে শাহরুখের যোগাযোগ নিয়মিত ছিল। ১৯৭৮-৭৯ সালে তিনি গিয়েছিলেন বাবার ফেলে আসা শহরে। সে প্রথমবার শাহরুখ বাবার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছিলেন। ভারতে শুধু তার মায়ের দিকের আত্মীয়স্বজন ছিলেন, বাবার গোটা পরিবারই পেশোয়ারে থাকতেন।

৪. একটু বড় হওয়ার পর শাহরুখের পরিবার দিল্লিতে চলে আসে। সেন্ট কলাম্বাস স্কুলে পড়াশোনা করেছেন তিনি। খেলাধুলোয় খুব আগ্রহী ছিলেন শাহরুখ। স্কুলে পড়ার সময়ে শাহরুখ হিন্দিতে খুব একটা দক্ষ ছিলেন না। তবে একবার হিন্দি পরীক্ষায় দশে দশ পেয়েছিলেন, পুরষ্কার হিসাবে তার মা সিনেমা দেখাতে নিয়ে গিয়েছিলেন।

৫. দিল্লির হংসরাজ কলেজ থেকে অর্থনীতিতে বি এ পাশ করেন আর জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়াতে মাস কমিউনিকেশন নিয়ে এম এ পড়তে ভর্তি হন। তবে সেটা আর শেষ করা হয় নি তার।

৬. শাহরুখ খানের স্ত্রী গৌরীর বাবা একজন সেনা কর্মকর্তা ছিলেন। স্কুলে পড়ার সময় গৌরীর সঙ্গে প্রথম পরিচয় হয় শাহরুখের। একটা পার্টিতে দুজনের মধ্যে বেশ অনেকক্ষণ গল্প চলে। তখন থেকেই শুরু হয় শাহরুখ-গৌরীর প্রেম পর্ব। সেই তারিখটাও মনে আছে শাহরুখের- দিনটা ছিল ১৯৮৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসের নয় তারিখে। সেই দিনই শাহরুখ ড্রাইভিং লাইসেন্সও পেয়েছিলেন। গৌরী আর শাহরুখের বিয়ে হয় ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর।

৭. শাহরুখের যখন ১৫ বছর বয়স, তখনই তার বাবা মা/রা যান ক্যা/ন্সা/রে আক্রান্ত হয়ে। পেশায় উকিল ছিলেন আবার স্বাধীনতা সংগ্রামেও অংশ নিয়েছিলেন শাহরুখের বাবা তাজ মুহম্মদ খান। অল্প বয়সে একবার জেলও খেটেছেন, পরে মৌলানা আবুল কালাম আজাদের বিরুদ্ধে ভোটেও দাঁড়িয়েছিলেন তাজ মুহম্মদ খান।

৮. শাহরুখ খানের প্রথম রোজগার ছিল ৫০ টাকা। গায়ক পঙ্কজ উদাসের একটা কন্সার্টে কাজ করে সেই টাকা পেয়েছিলেন। প্রথম রোজগারের টাকা দিয়ে ট্রেনের টিকিট কেটে শাহরুখ আগ্রা গিয়েছিলেন।

৯. তবে শাহরুখের প্রথম টেলি-সিরিয়াল শুরু হয় ১৯৮৯ সালে। কর্নেল কাপুরের পরিচালনায় ‘ফৌজি’ নামের সেই ধারাবাহিক খুবই জনপ্রিয় হয়েছিল। সেখানেই প্রথমবার ভারতের দর্শক দেখলেন পরের কয়েক বছরে স্টার থেকে সুপারস্টার হয়ে ওঠা শাহরুখ খানকে।

১০. ছোট থেকেই শাহরুখ খানের ইচ্ছা ছিল সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়ার। কলকাতার ‘আর্মি স্কুল’-এ ভর্তিও হয়েছিলেন শাহরুখ, কিন্তু ছেলেকে ছাড়তে রাজি হননি মা।

১১. ১৯৮৯-৯০ সালে রেণুকা সাহানের সঙ্গে ‘সার্কাস’ সিরিয়ালে কাজ করতে শুরু করেন শাহরুখ। সেই সময়ে তার মা গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। মাকে ধারাবাহিকটির একটা পর্ব দেখানোর জন্য বিশেষ অনুমিত নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তার মা তখন এতটাই অসুস্থ, যে ছেলেকে চিনতেও পারেননি। ১৯৯১ সালের এপ্রিল মাসে মৃ/ত্যু হয় শাহরুখ খানের মায়ের।

১২. মায়ের মৃ/ত্যু/র শোক থেকে দূরে সরে যেতে এক বছরের জন্য শাহরুখ দিল্লি থেকে মুম্বাই গিয়েছিলেন। কিন্তু তার ফেরা আর হয়নি। সে বছরই প্রথম চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন শাহরুখ খান। সেটি ছিল হেমা মালিনী অভিনীত ‘দিল আসনা হ্যায়’। নায়ক হিসাবে শাহরুখকে প্রথম দেখা গেল ২৫ জুন ১৯৯২-তে ‘দিওয়ানা’য়।

১৩. কঠোর পরিশ্রম করতে পারেন শাহরুখ। মাত্র চার-পাঁচ ঘণ্টা ঘুমান তিনি। তার প্রিয় উক্তি হলো, ‘ঘুমানো মানে জীবন নষ্ট করা’।

১৪. স্ত্রী সন্তান ছাড়া শাহরুখের সঙ্গে তার বাড়িতে থাকেন বড় বোন লালারুখ।

১৫. শাহরুখ খান কেবল একজন অভিনেতাই নন, তিনি একজন সফল প্রযোজক ও ব্যবসায়ী। তার নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থার নাম রেড চিলিস এন্টারটেইনমেন্ট।

১৬. ৫৫৫ নম্বরের প্রতি রীতিমত পাগলামি রয়েছে শাহরুখ খানের। তার সবগুলো গাড়ির নম্বরে এই সংখ্যাটি রয়েছে। এমনকি তার ফোন নম্বর এবং তার নিরাপত্তারক্ষীদেরও অনেকের নম্বরে এই ৫৫৫ সংখ্যাটি রয়েছে।

১৭. শাহরুখ খান এই পর্যন্ত ৮৯টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। তিনি বলিউডের একমাত্র অভিনেতা, যিনি তিনটি আন্তর্জাতিক ডক্টরেট ডিগ্রি পেয়েছেন।

১৮. জানা যায়, ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে’ সিনেমার চিত্রনাট্য পড়েননি শাহরুখ খান। আদিত্য চোপড়ার প্রতি ভালোবাসা থেকেই তিনি সিনেমাটি সাইন করেছিলেন। অথচ এই সিনেমাটি তার ক্যারিয়ার এবং বলিউডের ইতিহাস বদলে দেয়।

১৯. শাহরুখ খান ও কাজল অভিনীত ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে’ সিনেমাটি ভারতের মুম্বাইয়ের মারাঠা মন্দির সিনেমা হলে ২৫ বছর ধরে প্রদর্শিত হচ্ছে। পৃথিবীর আর কোনো সিনেমার এমন রেকর্ড নেই।

২০. চাঁদে জায়গা রয়েছে শাহরুখ খানের নামে। তার জন্মদিনে এক অস্ট্রেলীয় ভক্ত ওই জায়গাটি উপহার দেন। চাঁদের ‘দ্য সি অব ট্রাঙ্কুইলিটি’ এলাকায় রয়েছে সেই জায়গা।

২১. শাহরুখ খান অভিনীত সবচেয়ে বেশি আয় করা সিনেমা ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’। রোহিত শেঠি পরিচালিত এই সিনেমায় তার সঙ্গে অভিনয় করেছিলেন দীপিকা পাডুকোন। সিনেমাটি শুধু ভারতেই ২০৭ কোটির বেশি রুপি আয় করেছিল।

এই জনপ্রিয় অভিনেতা বলিউড ইন্ডাষ্ট্রিতে তিন দশকের বেশি সময় ধরে কাজ করছেন। এবং অভিনয় করেছেন অসংখ্য সিনেমায়। তার অভিনীত সিনেমা গুলো দর্শক মাঝে ব্যপক সাড়া ফেলেছে। তিনি তার অভিনয় জীবনের ক্যারিয়ারে অর্জন করেছেন ব্যপক সফলতা এবং সম্মমনা। তিনি অক্লান্ত পরিশ্রমের মধ্যে দিয়ে এই সফলতার শীর্ষ স্থান দখল করতে সক্ষম হয়েছেন।

Check Also

সংবাদ পাঠিকাকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন তাহসান

অভিনেতা, গায়ক তাহসান খান ও অভিনেত্রী মিথিলা ভালোবেসে সুখের সংসার সাজিয়েছিলেন। সেই সংসারের ইতি টানেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.