Home / মিডিয়া নিউজ / সবচেয়ে বড় ক্ষতিটা করেছেন হুমায়ূন আহমেদ: রিয়াজ

সবচেয়ে বড় ক্ষতিটা করেছেন হুমায়ূন আহমেদ: রিয়াজ

বিনোদন ডেস্ক: আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ক্ষতিটা করেছেন হুমায়ূন আহমেদ: রিয়াজ জনপ্রিয়

কথাশিল্পী ও নির্মাতা হুয়ায়ূন আহমেদের ৭১তম জন্মবার্ষিকী আজ বুধবার। দিনটিকে ঘিরে

হুমায়ূন আহমেদ স্মরণে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সাহিত্য ও বিনোদন অঙ্গনের পক্ষ থেকে।

প্রিয় নির্মাতার জন্মদিনে মুখ বুঝে থাকা হলো না ‘দুই দুয়ারী’র অভিনেতা চিত্রনায়ক রিয়াজের। হুমায়ূন আহমেদের একাধিক ছবির এই নায়ক জানালেন, যারা হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে কাজ করতে তারা নাকি তাঁর আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে যেতেন।

হুমায়ূনের হাতে গড়া ‘দুই দুয়ারী’ ছবিটি চিত্রনায়ক রিয়াজকে ভিন্ন উচ্চতায় পৌঁছে দিয়েছে। অথচ নায়কের কণ্ঠে নির্মাতাকে নিয়ে একি কথা!

হুমায়ূন আহমেদের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রিয়াজ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ক্ষতিটা করেছেন হুমায়ূন আহমেদ। তাঁর সঙ্গে ‘দুই দুয়ারী’ ছবিটা করার পর কমার্শিয়াল ছবি নিয়ে আমার চিন্তা-ভাবনায় আমূল পরিবর্তন ঘটলো। আমি এরপরে কমার্শিয়াল ছবি বলতে যা বোঝায়- সেটার প্রতি পুরোপুরিভাবেই আগ্রহ হারিয়ে ফেললাম। বলুন- এটা ক্ষতি কি না।’

এই ক্ষতিকে ‘মেজর ড্যামেজ’ বলেই হেসে উঠেন রিয়াজ।

‘দুই দুয়ারী’তে কাজ করার পর রিয়াজ হুমায়ূনের এতটাই ভক্ত হয়ে গিয়েছিলেন যে, সময় পেলেই নুহাশপল্লীতে ছুটে যেতেন। দিনরাত পড়ে থাকতেন। আর তা কেবল অদ্ভূত এক ভালোবাসার টানে।

রিয়াজের এই ভালোবাসা ক্রমে তাতে বাণিজ্যিক ধারার ছবি থেকে দূরে সরিয়ে নেয়। তিনি স্বীকার করেন, হুমায়ূন মোহ’র কারণে তার উঠতি ক্যারিয়ার একটা সময় অন্যদিকে বাঁক নেয়।

তবে ‘দুই দুয়ারী’র পর জাতীয় পুরস্কার পেয়ে রিয়াজ তার অভিনয় জীবনের মর্মপোলব্দি করতে পেরেছিলেন। রিয়াজ বুঝতে পারেন- জীবনে অর্থ উপার্জনের চেয়েও মহৎ কিছু করার আছে। আর সেই উপলব্ধি হয়েছিল বলেই কৃতজ্ঞতায় নত হয়ে হুয়ায়ূন আহমেদ সম্পর্কে মজা করে তিনি বলতে পারলেন- ‘আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ক্ষতিটা করেছেন হুমায়ূন আহমেদ।’

এই কথার ভেতরে হুমায়ূনের প্রতি তার যে কতটা নিবেদন ও ভালোবাসা তা স্পষ্ট হয়।

Check Also

সংবাদ পাঠিকাকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন তাহসান

অভিনেতা, গায়ক তাহসান খান ও অভিনেত্রী মিথিলা ভালোবেসে সুখের সংসার সাজিয়েছিলেন। সেই সংসারের ইতি টানেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.