Home / মিডিয়া নিউজ / কোন নায়িকার বদনাম নেই? দেখান তো : পলি

কোন নায়িকার বদনাম নেই? দেখান তো : পলি

এক দশক আগেও চলচ্চিত্রে স্বর্ণযুগ ছিল পলির। তখন এই নায়িকা এতই ব্যস্ত ছিলেন যে, দম

ফেলার সময় পেতেন না। বছরে ৩৬টি সিনেমা পর্যন্ত করেছেন। তবে সময়ের স্রোতে অনেক কিছুই থেমে যায়। থেমে গেছেন পলিও।

নব্বই দশকের শেষের দিকে ঢাকাই চলচ্চিত্রে অশ্লীলতার মহামারি ছিল। কাটপিস নির্ভর এসব সিনেমায় চাহিদাসম্পন্ন চিত্রনায়িকাদের মধ্যে পলি অন্যতম। তখন চিত্রনায়িকাদের বিরুদ্ধে ছিল অশ্লীলতার অভিযোগ। সময়ের ব্যস্ততম এ চিত্রনায়িকা হঠাৎ করেই চলচ্চিত্র থেকে অন্তরালে চলে যান। বর্তমানে স্বামী-সন্তান নিয়ে রাজধানীর গুলশানে বসবাস করছেন তিনি।

যে সময় যে কয়েকজন শিল্পীকে নামে বদনাম ছিল। তাদের মধ্য চিত্রনায়িকা পলি অন্যতম। এবিষয়ে জানতে চাইলে পলি বলেন, ‘দেখেন বদনাম সব হিরো-হিরোইনদের নিয়েই আছে। এখনকার সবার নামেই বদনাম আছে। কোন নায়িকার বদনাম নেই? সিনিয়র জুনিয়র সবার নামে বদনাম আছে। আর এটা নিয়ে আমি কথা বলতে চাচ্ছি না। ওই যে কথায় আছে না আঙ্গুর ফল টক।’

তিনি বলেন, ‘যখন যে হিট থাকবে তখন তাকে নিয়ে গসিপ থাকবে। যাদের নাম নেই তাদের নিয়ে কেউ গসিপ করবে না। মুনমুন বলেন, পলি বলেন, ময়ূরী বলেন প্রত্যেকে অনেক সিনেমায় কাজ করেছেন। ইন্ডাস্ট্রিকে এরা অনেক দিয়েছেন। তাদের বেইজ করে অনেক মানুষ কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন। আমাদের সময় কেউ বেকার ছিল না। এগুলো সিলি বিষয়।’

দেশের বর্তমান সিনেমা অবস্থা সম্পর্কে পলি বলেন, ‘আজকে বিএফডিসিতে অনেক মানুষ না খেয়ে গ্রামে চলে গিয়েছে। কাজ না করতে পেরে বেকার হয়ে পড়েছেন। এ রকম আমাদের বিএফডিসিতে ছিল না। কি অবস্থা হয়েছে বিএফডিসির! কয়টা সিনেমা হচ্ছে? ইন্ডাস্ট্রি আজ ধ্বংসের মুখে। একজন শিল্পী এখন দাঁড়াতে পারছে?’

তিনি বলেন, ‘আমাদের নিয়ে যতই নাক ছিটকানো হয় না কেন আমাদের বেইজ করে গল্প লেখা হতো। আগে আমাদের সাইন করানো হতো। এরপর প্রযোজক, পরিচালক সিদ্ধান্ত নিত কাকে নায়ক হিসেবে নিবে। এখন সেই যোগ্যতা বা ক্ষমতা কোন নায়িকার নেই যে সিনেমার মাঠকে নিজের হাতে নিয়ে আসবে। আজকে ইন্ডাস্ট্রির এ অবস্থা থাকবে কেন? দশটা হিরো দশটা হিরোইন থাকবে। কেউ নেইতো!’

Check Also

সংবাদ পাঠিকাকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন তাহসান

অভিনেতা, গায়ক তাহসান খান ও অভিনেত্রী মিথিলা ভালোবেসে সুখের সংসার সাজিয়েছিলেন। সেই সংসারের ইতি টানেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.