Home / মিডিয়া নিউজ / মাধুরীর অনুরোধে সঞ্জু থেকে বাদ দেওয়া হল সেই দৃশ্য, কি ছিল সেই দৃশ্যে?

মাধুরীর অনুরোধে সঞ্জু থেকে বাদ দেওয়া হল সেই দৃশ্য, কি ছিল সেই দৃশ্যে?

১৯৯১ সালের গোড়ার দিকের ঘটনা। তখন ‘সাজন’ ছবির শুটিং করছিলেন সঞ্জয় ও মাধুরী।

শুটিংয়ের মাধ্যমেই একে অপরের কাছে আসা, আর এ থেকেই যে কখন তা প্রেমে রূপ নিয়েছে

দুজনের কেউই তা বুঝতে পারে নি। তবে এ প্রেম নিয়ে দুজনের কেউই তখন মুখ না খুললেও

পরবর্তীতে তা জানার কেউ আর বাকি থাকে না। তবে শেষমেশ টেকেনি আর সে সম্পর্ক।

এত বছর পর এবার সেই প্রেম নিয়েই বিপাকে পড়েছেন মাধুরী। সঞ্জয় দত্তের জীবনী নিয়ে নির্মিত হচ্ছে সিনেমা ‘সঞ্জু’। সঞ্জয় দত্তের জীবনের নানা জানা-অজানা কাহিনি নিয়ে ছবির চিত্রনাট্য সাজিয়েছেন রাজকুমার হিরানি। পরিচালনাও করছেন তিনি। বাস্তবের এ কাহিনিতে রয়েছে অনেক বিতর্কিত বিষয়ও।

শোনা গেছে, ছবির এক জায়গায় জেল থেকে মাধুরী দীক্ষিতকে ফোন করেন সঞ্জয় দত্ত। ফোনটি ধরেছিলেন মাধুরীর মা। স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন তার মেয়ে সঞ্জয়ের সঙ্গে কোনও সম্পর্ক রাখতে চান না। তিনি যেন আর যোগাযোগ করার চেষ্টা না করেন।

এই দৃশ্যের কথা শুনেই নাকি ব্যস্ত হয়ে ওঠেন মাধুরী। পরিচালককে ফোন করে ওই দৃশ্য বাদ দেয়ার অনুরোধ জানান। সে অনুরোধ রেখেই ছবি থেকে মাধুরীর দৃশ্যটি বাদ দেয়া হয়েছে।

তবে এমন অনেক দৃশ্যের ঝলক ‘সঞ্জু’ ছবির ট্রেলারে রয়েছে, যা ভবিষ্যতে বিতর্কের সৃষ্টি করতে পারে বলেই মনে করছেন অনেকে। তবে ট্রেলারে বাজিমাত করেছেন রণবীর কাপুর, সোনম কাপুর, ভিকি কৌশল।

এদিকে দুই দশক পর ফের এক ছবিতে কাজ করছেন মাধুরী-সঞ্জয়। করণ জোহরের ‘কলঙ্ক’-তে দেখা যাবে দু’জনকে। যদিও প্রথমে ছবিতে অভিনয় করার কথা ছিল শ্রীদেবীর। কিন্তু তাঁর আকস্মিক প্রয়াণের পর করণের অফার ফেলতে পারেননি মাধুরী। সঞ্জয় ও মাধুরী দুজনেই নিজ সম্মতিতেই চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ‘কলঙ্ক’ ছবিতে । ইতিমধ্যেই ছবিটির শুটিংও শুরু হয়ে গিয়েছে।

১৯৯৭ সালে ‘মহাত্মা’নামের একটি সিনেমায় সর্বশেষ সঞ্জয়-মাধুরীকে একসঙ্গে দেখা যায়। এরপর তারা আর একসঙ্গে সিনেমায় অভিনয় করেননি। মুম্বাই বোমা হামলার ঘটনায় সঞ্জয়ের নাম সামনে আসার পরই সঞ্জয় থেকে দূরে সরে যান মাধুরী।

Check Also

সংবাদ পাঠিকাকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন তাহসান

অভিনেতা, গায়ক তাহসান খান ও অভিনেত্রী মিথিলা ভালোবেসে সুখের সংসার সাজিয়েছিলেন। সেই সংসারের ইতি টানেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.